বিজয় কণ্ঠ

সকলের কথা সমানভাবে

বাংলাদেশের ই-স্পোর্টস এর একটি নতুন সূচনা

ই-স্পোর্টস বা ইলেকট্রনিক ই-স্পোর্টস বর্তমানে বাংলাদেশের ইয়াং জেনারেশনের জন্য অন্যতম একটা জায়গা হিসেবে দেখা যাচ্ছে। বিশেষ করে পাবজি মোবাইলের মাধ্যমে। হাজার হাজার ছেলে-মেয়ে এই গেমটি খেলছে এবং জড়িয়ে যাচ্ছে প্রতিযোগিতামূলক লড়াইয়ে। অনলাইন গ্যামিং এর মাধ্যমে লাখ লাখ, কোটি কোটি টাকা উপার্জন করছে বাংলার তরুণরা এবং তারই সাথে নিজের দেশকে প্রতিনিধিত্ব দিচ্ছে বিশ্বমঞ্চে।
বিশ্বমঞ্চে বাংলাদেশের তরুণদের এই প্রতিযোগিতা মূলক খেলার জন্য যেমন টেনসেন্ট, নডউইং গ্যামিং এর মতো বড় বড় বিদেশি প্রতিষ্ঠানরা যেমন প্রতিনিয়ত বাংলাদেশের তরুণদের জন্য বড় বড় প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট এর আয়োজন করছে তারই সাথে তাল মিলিয়ে দেশের এই তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের জন্য প্রতিনিয়ত বিভিন্ন টুর্নামেন্ট এর আয়োজন করছে এসএলএক্স ই-স্পোর্টস এবং নিউট্রোফিল প্রাইভেট লিমিটেড সাথে রাখছে বড় অংকের টাকা পুরস্কার। এসএলএক্স ই-স্পোর্টস এর ফাউন্ডার সৈকত সরকারকে এই বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তার মতামত হচ্ছে, ‘বাংলাদেশে ই-স্পোর্টস প্লেয়ার রা অনেক উন্নত মানসম্পন্ন। কিন্তু বাংলাদেশে এখনো বাইরের দেশের মতো তেমন কোনো স্পনসর নেই যারা কিনা এই বাচ্চা গুলাকে সহযোগিতা করবে এবং আমাদের দেশের মা-বাবারাও এখনো ওতোটা প্রগ্রেসিভ ওয়েতে তাদের কে সাপোর্ট করে না। যার কারণেই মূলত আমি এই ধরণের আয়োজন করে থাকি যেখানে বাচ্চারা খেলে এতে তাদের অনুশীলন হয় এবং যারা বিজয়ী হয় তারাও অর্থ পুরস্কার পায় এবং দেখা যায় এতে হইতো তারা একটু উৎফুল্ল থাকে আর তারা তাদের পরিবারকে দেখাতে পারে যে এইটাতেও একটা ক্যারিয়ার আছে।’

বর্তমানে এসএলএক্স ই-স্পোর্টস এর পরিবেশনায় এবং নিউট্রোফিল প্রাইভেট লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনায় তারা একটি বড় ধরণের প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্টের আয়োজন করছেন যার প্রাইজপুল হিসেবে থাকবে ২ লক্ষ টাকা। এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চেলে নিউট্রোফিল প্রাইভেট লিমিটেড এর সিইও এবং এই টুর্নামেন্টের হেড অফ অপারেশন ফারহান ফেরদৌস রোহান বলেন, ‘এটা আসলে বলতে পারেন বাংলাদেশের অন্যতম সর্বশ্রেষ্ঠ একটা আয়োজন হবে ই-স্পোর্টস এর জন্য। আমরা এইবার কেবল বাংলাদেশ না। নেপাল, পাকিস্তান, মঙ্গোলিয়া, শ্রীলঙ্কাতে এই ইভেন্টটা হোস্ট করবো এবং আমরা আমাদের দেশের তরুণ খেলোয়াড়দের এমন একটা প্রতিযোগিতামূলক খেলার মধ্যে রাখবো যেটা তাদের জন্য অনেক উপকারী হবে। আসলে এই ইভেন্ট একটা সারপ্রাইজ এবং আশীর্বাদের রূপধারণ করবে পুরো বাংলাদেশের তরুণ খেলোয়াড়দের জন্য এবং সাথে সাথে আমাদের দর্শকদের জন্য। এমন একটা জিনিস আমরা সবাইকে উপহার দিবো যেটার স্বাদ বাংলাদেশের ই-স্পোর্টস কখনোই ভুলতে পারবে না। আমরা এর আগেও বাংলাদেশে অনেক বড় বড় ইভেন্ট করেছি। সবগুলোই করেছি সরকার ভাই (এসএলএক্স ই-স্পোর্টস এর সিইও), সোয়েব ভাই (এসএলএক্স ই-স্পোর্টস এর লিডার) তাদের উদ্যোগে।

তিনি বলেন, ‘আমাদের বড় ভাই বলেন কিংবা অবিভাবক বলেন সরকার ভাই আমাদের যেভাবে সহযোগিতা করেছেন আসলে তার অবদান সব থেকে বেশি। আমরা একটা ইভেন্ট ম্যানেজ করি কিন্তু এইযে উদ্যোগ গুলা সেটা সরকার ভাই ব্যাতিত অনেক মুশকিল। মুশকিল কি বলবো আসলে অসম্ভব বলা যেতে পারে। এবার অনেক বড় কিছু করছি। অনেক বড় একটা ধামাকা যেইটা আমাদের দেশের ই-স্পোর্টসকে অনেক দূর আগিয়ে নিয়ে যাবে।’

এসএলএক্স ই-স্পোর্টস এর আয়োজিত এবং নিউট্রোফিল প্রাইভেট লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনায় তাদের এই ২ লক্ষ টাকা প্রাইজপুলের টুর্নামেন্টের রেজিস্ট্রেশন খুবই দ্রুত শুরু হবে এবং তার সকল কিছুই জানতে পারবেন এসএলএক্স ই-স্পোর্টস এর ফেসবুক পেজটি তে।